ঢাকাবুধবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কোন উপায়ে ভাত খেলেও বাড়বে না মেদ ভুঁড়ি

লাইফস্টাইল ডেস্ক
জুন ৮, ২০২২ ৪:৫৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ওবেসিটির চোখরাঙানিতে আমাদের খাদ্যাভাসে বেশ বদল আসছে। ভাত না খেয়ে ওজন কমানোর চিন্তায় বেছে নিচ্ছি পেট ভরানোর অন্য বিকল্প৷ ‘নো কার্ব’ ডায়েটের বাড়বাড়ন্ত ইদানীং চোখে পড়ার মতো। ফলস্বরূপ খাবার পাতে থাকছে না ভাত। কিন্তু ভাত খাওয়া মানেই হু হু করে ওজন বাড়বে এমনটা কিন্তু নয় বলেই দাবি পুষ্টিবিদদের ৷

তাঁরা জানিয়েছেন, সকাল–বিকেল এক থালা ভাত নিয়ে বসা যেমন কাজের কথা নয়, ঠিক তেমনই তাকে পুরোপুরি বর্জন করারও কোনও প্রয়োজন নেই। আমরা অনেকেই ডায়েটের চক্করে একেবারেই ভাত খাওয়া ছেড়ে দিই। সুষম খাবারের অঙ্গ হিসেবে পরিমাণে অল্প করে ভাত খেলে, সে যদি ফ্যানা ভাতও হয়, ওজন বাড়ে না। শরীর ভাল রাখতে সারা দিনে ১৫০ গ্রামের মতো ভাত খাওয়া যেতেই পারে।

ফ্যাট জাতীয় খাবার খেলে ওজন বাড়ার আশঙ্কা অনেক বেশি। তবে ভাতে ট্রান্স ফ্যাট থাকে না। এতে থাকে কমপ্লেক্স কার্বোহাইড্রেট, যা শরীরে পর্যাপ্ত শক্তি জোগায়। এতে উপস্থিত ফাইবার পেটের সমস্যা কমাতে, ওজন ও রক্তচাপ বশে রাখতে সাহায্য করে।

ভাত খেলেই রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যাবে সেই আশঙ্কায় অনেক ডায়াবেটিক রোগী ভাত খান না। ডায়াবেটিস থাকলেও বেশি করে শাকসব্জি ও স্যালাড থাকলে এক-আধ কাপ ভাত খাওয়া যেতে পারে।

ওজন ঝরাতে চাইলে ভাত খাওয়ার সময় কোন কোন বিষয়ে মাথায় রাখবেন?

১) পরিমাণ: ভাত খাওয়া উপকারী বললে চার বেলা ভাত খাওয়া কিন্তু চলবে না! পরিমাণ কিন্তু বড় বিষয়। সারা দিনে আপনি কতটা ক্যালোরি ঝরাচ্ছেন, তার উপরেই নির্ভর করবে আপনার দিনে ঠিক কতটা ভাত খাওয়া উচিত।

২) খাবার পাতে বেশি শাক-সব্জি রাখুন: ভাত খেলে আপনার খিদে বেড়ে যেতে পারে। তাই ভাতের সঙ্গে বেশি করে শাক-সব্জি খান। সবুজ শাক-সব্জি ফাইবার ও প্রোটিনের ভাল উৎস। তাই পেট অনেকক্ষণ ভরা থাকবে।

৩) সেদ্ধ ভাত খান: রোজের খাদ্যতালিকায় সেদ্ধ করা ভাত রাখুন। অনেকেই টিফিনে ভাত নিয়ে যান। সে ক্ষেত্রে ভাত ভাজা থাকে তাঁদের পছন্দের তালিকায়। ভাতের সঙ্গে তেল, ঘি মেশালে তার পুষ্টিগুণ কমে যায়। তা ছাড়া ওজন বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কাও থাকে।

৪) ব্রাউন রাইস খান: ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হলে সাদা চালের পরিবর্তে বেছে নিন ব্রাউন রাইস। এতে ফাইবারের মাত্রা বেশি থাকে। সাদা চালের তুলনায় ক্যালোরিও কম থাকে এতে। তাই ওজন ঝরানোর পরিকল্পনা থাকলে খাদ্যতালিকা থেকে ভাত একেবারে বাদ না দিয়ে, ব্রাউন রাইস খেতেই পারন।

৫) দুপুরে ভাত খান: রাতে খুব ভারী খাবার খেলে বিপাকক্রিয়ায় সমস্যা হয়। তাই রাতে নয়, দিনের বেলায় ভাত খান। ওজন ঝরাতে রাতে হালকা খাবার খাওয়াই শ্রেয়।