ঢাকাবুধবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কোরিয়ানরা কেন চালের পানি মাখেন ত্বক ও চুলের যত্নে ?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
জুন ১২, ২০২২ ২:২৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

কোরিয়ানদের মসৃণ ও দাগহীন ত্বক দেখে সবারই নিশ্চয়ই হিংসা হয়! কোরিয়ানদের ত্বক কীভাবে এতো উজ্জ্বল ও গ্লাসের মতো চকচকে, তা জানার আগ্রহ আছে সবার মনেই! কোরিয়ানরাই গ্লাস স্কিনের উদ্ভাবক। এর অর্থ হলো, কাচের মতো স্বচ্ছ ও চকচকে ত্বকের অধিকারী।

কোরিয়ানদের ত্বকও যেমন চকচকে ঠিক তেমনই তাদের চুলও ঝলমলে। এর কারণ হলো তারা সৌন্দর্যচর্চায় নিয়মিত ব্যবহার করেন চালের পানি। বলতে গেলে তারা এই পানীয়ের প্রতি খুবই নির্ভরশীল।

এর কারণ হলো চালের পানিতে থাকা গুণাগুণ। এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সৌন্দর্যবিদ শাহনাজ হোসেন চালের পানির কিছু উপকারিতা জানিয়েছেন।

ত্বকের জন্য চালের পানির উপকারিতা-

>> সংবেদনশীল ত্বকের যত্নে চাল ধোয়া পানি খুবই উপকারী। এটি ব্রণসহ ত্বকের বিভিন্ন প্রদাহ দূর করে।

>> ত্বকের লোমকূপের ছিদ্র বড় হয়ে যাওয়া বা পোর্সের সমস্যাও সমাধান করে চাল ধোয়া পানি। এটি একটি দুর্দান্ত টোনার। ত্বকে সিবাম উৎপাদন নিয়ন্ত্রণ করে এই পানীয়। ফলে পোর্সের সমস্যা কমে।

>> ত্বক উজ্জ্বল ও চকচকে করতেও চাল ধোয়া পানি অনন্য। আপনার ত্বক যদি নিস্তেজ, ব্রণযুক্ত বা খসখসে প্রকৃতির হয় তাহলে চালের পানি ব্যবহার করুন। ত্বকের দাগ দূর হবে ও মুহূর্তেই পাবেন উজ্জ্বলতা।

>> ভাতের পানিতে থাকে উচ্চ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা ত্বকে বার্ধক্যের ছাপ দূর করে।

>> সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি ত্বকে নানা সমস্যার সৃষ্টি করে। চালের পানি প্রাকৃতিক সানস্ক্রিন হিসেবে কাজ করে ও ত্বককে ইউভি রশ্মি থেকে রক্ষা করে। তাছাড়া সানট্যানের দাগও দূর করে।

ত্বকে চালের পানি ব্যবহারের উপায়-

সামান্য চাল ধুয়ে পানিতে সেদ্ধ করুন। তারপর ওই পানি ঝরিয়ে রাখুন ও ঠান্ডা হতে অপেক্ষা করুন। এরপর এটি একটি স্প্রে বোতলে ঢেলে সংরক্ষণ করুন ২-৩ দিন।

যখন প্রয়োজন তখন স্প্রে করে ত্বকে ব্যবহার করুন। এছাড়া একটি বাটিতে পানির মধ্যে চাল ভিজিয়ে রাখুন সারারাত। সকারে চাল ফেলে দিয়ে ওই পানি ছেঁকে নিয়ে বোতলে সংরক্ষণ করেও ব্যবহার করতে পারেন।

চুলের যত্নে চালের পানির উপকারিতা-

>> চালে থাকা প্রোটিন চুলের স্বাস্থ্য বজায় রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

>> এই পানিতে থাকা ভিটামিন সি, বি ও ই পুষ্টি উপাদান চুল গজাতে সাহায্য করে।

>> চালের পানি চুলের রুক্ষভাব দূর করে। ফলে চুল আরও কোমল হয় ও জট বাধার সমস্যাও দূর হয়।

>> চাল ভেজানো পানিতে থাকা প্রোটিন ময়েশ্চারাইজিংয়ের কাজ করে। যা মাথার ত্বক ও চুলের আর্দ্রভাব বজায় রাখে। এতে চুল আরও লম্বা ও ঘন হয়।

চুলে কীভাবে ব্যবহার করবেন?

চালের পানি কন্ডিশনারের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য চুল শ্যাম্পু করার পর সংরক্ষিত চালের পানি ব্যবহার করে ১৫-২০ মিনিটের জন্য রেখে ও ম্যাসাজ করে ধুয়ে ফেলতে হবে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া