ঢাকাবৃহস্পতিবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বিশ্ব গণমাধ্যমে উঠে এলো পদ্মা সেতুর উদ্বোধন

ইমরান রহমান অনিম
জুন ২৬, ২০২২ ৪:৪৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

জনসাধারণের জন্য খুলে গেছে পদ্মা সেতু। রোববার (২৬ জুন) সকাল থেকে এই সেতুতে শুরু হয়েছে যান চলাচল। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পদ্মা সেতু দেখতে পাড়ি জমিয়েছেন অনেকে। বাংলাদেশের গর্ব এই সেতুর কথা উঠে এসেছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমধ্যমেও।

প্রভাবশালী মার্কিন গণমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টে উঠে এসেছে পদ্মা সেতুর নাম। সংবাদ মাধ্যমটিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের শিরোনাম ছিল, দেশের সবচেয়ে বড় সেতু চালু হলো বাংলাদেশে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড এ সেতুটি নির্মাণ করেছে। চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং এক বিবৃতিতে বলেছেন, সেতুটি চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড অবকাঠামো উদ্যোগের সরাসরি অংশ না হলেও এটি বাংলাদেশের সঙ্গে সহযোগিতার জন্য একটি মাইলফলক।

আরেক মার্কিন সংবাদমাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক চাপ, দেশের অভ্যন্তরে নানা শক্তির চাপ, দুর্নীতির অভিযোগ ইত্যাদি সমালোচনা মোকাবেলা করে এ সেতুর সফল উদ্বোধন বাংলাদেশ সরকারের দৃঢ়তার প্রতীক হয়ে উঠেছে। এই প্রতিবেদনে পদ্মা সেতুকে বাংলাদেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নের মুকুটে একটি রত্ন হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

ভারতের গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া, দ্য হিন্দু, এনডিটিভি গুরুত্ব দিয়ে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের খবর প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গের প্রথম সারির সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকাও শনিবার উদ্বোধনের দিন থেকেই পদ্মা সেতুর খবর গুরুত্বের সাথে প্রকাশ করেছে। সেখানে উঠে এসেছে, এই সেতুর কারণে কলকাতার সাথে ঢাকার দূরত্ব কমে যাওয়ার বিষয়টিও।

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরারও পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে প্রকাশ করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের ‘গর্বের প্রতীক’ পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করা হয়েছে। সেতুটি জাতীয় গৌরবের প্রতীক এবং এর উদ্বোধন বাংলাদেশের ইতিহাসে এক গুরুত্বপূর্ণ উপলক্ষ।

বার্তা সংস্থা এপিতেও স্থান পেয়েছে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন। ‘দেশের সর্ববৃহৎ সেতু উদ্বোধন করেছে বাংলাদেশ’ এই শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে এপি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ২০১২ সালে পদ্মা সেতুর প্রকল্প থেকে ১ দশমিক ২ বিলিয়ন ডলার অর্থায়ন তুলে নিয়েছিল বিশ্বব্যাংক। পরে বাংলাদেশ সরকার নিজস্ব অর্থায়নে সেতুটি নির্মাণ করে।

মধ্যপ্রাচ্যের গণমাধ্যম আরব নিউজ বলছে, বাংলাদেশে ৩ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলার ব্যয়ে নির্মিত পদ্মা সেতু চালু হয়েছে। সেতুটি রাজধানীর সঙ্গে দক্ষিণের জেলাগুলোকে সংযুক্ত করবে। এর মাধ্যমে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটবে।

পদ্মা সেতুর সংবাদ প্রকাশ করেছে গালফ নিউজও। এক প্রতিবেদনে সংবাদমাধ্যমটি বলেছে, দুর্নীতির অভিযোগ মোকাবেলা করে অবশেষে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করলো বাংলাদেশ। এর মাধ্যমে দক্ষিণাঞ্চলসহ ভারতের কলকাতা পর্যন্ত পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল সহজ হবে।

এছাড়া ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল, চীনের সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া, পাকিস্তানের ডেইলি টাইমসসহ বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যমে স্থান পেয়েছে পদ্মা সেতুর খবর।