ঢাকাশনিবার, ২৮শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

কলেজছাত্রীকে শ্লীলতাহানি, সাবেক মন্ত্রী গ্রেফতার

ইমরান রহমান অনিম
জুন ৩০, ২০২২ ৩:১৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

কলেজছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন ভারতের ত্রিপুরার সাবেক মন্ত্রী। বুধবার (২৯ জুন) দিল্লির কৌটিল্য মার্গ থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা হয়েছে, চলছে জিজ্ঞাসাবাদও।
সংবাদ প্রতিদিনসহ স্থানীয় একাধিক গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, মেবারকুমার জমাতিয়া ত্রিপুরার আদিবাসী কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রী ছিলেন। ত্রিপুরার আইপিএফটি পার্টির বিধায়কও তিনি। তার বিরুদ্ধে দিল্লির ত্রিপুরা ভবনে এক কলেজছাত্রীর শ্লীলতাহানি এবং ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

বুধবার বাদী ও অভিযুক্ত সাবেক মন্ত্রীকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করে কৌটিল্য মার্গ থানার পুলিশ। তারপর মেবারকুমারকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

পুলিশ সূত্রের খবর, আপাতত দিল্লির একটি কলেজে পড়াশোনা করছেন ওই ছাত্রী। তিনি ত্রিপুরার বাসিন্দা। সাময়িকভাবে দিল্লির ত্রিপুরা ভবনে থেকেই পড়াশোনা চালাচ্ছেন। অভিযোগ ওঠেছে, ত্রিপুরা ভবনেই তার শ্লীলতাহানি করা হয়। সাবেক মন্ত্রীর হাত থেকে রেহাই পেতে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ পাওয়ামাত্র মঙ্গলবার (২৮ জুন) রাতে দিল্লির পুলিশ ত্রিপুরা ভবনে হানা দেয়। বুধবার সকালেও চলে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ। তারপরই গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্তকে। অভিযোগকারীকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিকে দিল্লির ত্রিপুরা ভবনের যুগ্ম আবাসিক কমিশনার রঞ্জিত দাস ত্রিপুরা সরকারের সাধারণ প্রশাসন বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারিকে চিঠি দিয়ে পুরো ঘটনাটি জানিয়েছেন।

স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। জানা গেছে, ওই ছাত্রী বিজেপির জনজাতি মোর্চার নেতা পাতাল কন্যা জমাতিয়ার ঘনিষ্ঠ।