বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০ ইং, ১৩ কার্তিক ১৪২৭ বাংলা

হিন্দুদের ঘৃণা করতে শেখাচ্ছে পাকিস্তানের স্কুলে,জাতিসংঘে অভিযোগ
ঢাকা কনভারসেশন ডেস্ক প্রকাশিত হয়েছে: ২০২০-১০-১৬ ১৬:১৫:৫৮ /
হাজী সেলিমের ছেলে এরফান গ্রেফতার

পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের উপর অকথ্য অত্যাচারের কাহিনী আজ গোটা বিশ্ব জানে।চীনের মদতে কীভাবে ইমরান খানের প্রশাসন পাক অধিকৃত কাশ্মীরের ভোলবদল করার চেষ্টা করছে তাও অজানা নেই কারও কাছে। এর মধ্যেই পাকিস্তানের স্কুলে দীর্ঘদিন ধরে হিন্দু ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষদের ঘৃণা করতে শেখানো হচ্ছে বলে জানালেন বালুচ আন্দোলনের এক নেতা মুনির মেনগাল।

জাতিসংঘের একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বালুচ ভয়েস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুনির বলেন, ‘ছোটবেলায় সরকারের নিয়ন্ত্রণাধীন খুবই উচ্চমানের সেনা স্কুলে পড়াশোনা করতাম। ক্যাডেট কলেজ নামে ওই স্কুলে যাওয়ার পর প্রথমেই আমাদের শেখানো হয় হিন্দুরা হল কাফের আর খ্রিস্টানরা হল ইসলামের শত্রু। এই জন্য এদের হত্যা করতে হবে। এছাড়া কোনও কারণের দরকার হবে না।’

অতীতে মতো আজও পাকিস্তানে সেই একই ঘটনা ঘটেছে বলে  জানিয়েছেন তিনি। এপ্রসঙ্গে আরও বলেন, ‘পুরনো দিনের মতোও আজই ওই সমস্ত স্কুলে সেনার শিক্ষকরা পড়ুয়াদের হিন্দুবিদ্বেষ শেখাচ্ছে। তাঁদের প্রতি ঘৃণার মনোভাব ছড়াচ্ছে। ছোট ছোট পড়ুয়াদের শিশু বয়স থেকেই বন্দুক ও বোমাকে শ্রদ্ধা করতে শেখানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে, এইগুলি ব্যবহার করে হিন্দু মায়েদের খুন করতে হবে। না হলে তাঁরা হিন্দু সন্তানের জন্ম দেবে।’

বর্তমানে চীনের মদতে অর্থনৈতিক করিডর তৈরি করার নামে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ইমরানের সরকার স্বেচ্ছাচারিতা চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন ওই বালুচ নেতা। সরকারের অনৈতিক কাজের সমালোচনা করলে সাধারণ মানুষকে রাতারাতি গায়েব করে দেওয়া হচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন। অবিলম্বে জাতিসংঘ এই ধরনের কার্যকলাপের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে পাকিস্তানে মৌলবাদীরা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়গুলিকে ধ্বংস করে দেবেও বলেও আশঙ্কা তাঁর।সংবাদ প্রতিদিন

ফ্রান্সের উচিৎ মুসলিম দেশগুলোতে হস্তক্ষেপ বন্ধ করা: রুহানি