বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০ ইং, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বাংলা

বিয়ের প্রতিশ্রূতি দিয়ে গর্ভপাত! বিপাকে মিঠুনের ছেলৈ ও স্ত্রী
ঢাকা কনভারসেশন ডেস্ক প্রকাশিত হয়েছে: ২০২০-১০-১৮ ১৩:১৭:২০ /
ফ্রান্সের উচিৎ মুসলিম দেশগুলোতে হস্তক্ষেপ বন্ধ করা: রুহানি

আইনি বিপাকে সুপারস্টার মিঠুন চক্রবর্তীর  ছেলে মহাক্ষয় ওরফে মিমো এবং তাঁর মা যোগিতা বালি। মিমোর বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, প্রতারণা এবং জোর করে গর্ভপাতের অভিযোগ করেছেন ওই তরুণী। যোগিতা বালির বিরুদ্ধে উঠেছে নির্যাতিতাকে ভয় দেখানের অভিযোগ। মুম্বইয়ের ওশিওয়াড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।

নির্যাতিতার দাবি, ২০১৫ সালে মিমো তাঁকে বাড়িতে ডেকে পাঠায়। তিনিও মিঠুন পুত্রের ডাকে সাড়া দিয়ে বাড়িতে যান। অভিযোগ, মাদক মিশ্রিত ঠান্ডা পানীয় ওই তরুণীকে খেতে দেন মিমো। তিনি প্রায় অচৈতন্য হয়ে পড়েন। সেই সুযোগে মিমো তাঁর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করেন। এরপর চার বছর ধরে সম্পর্ক ছিল তাঁদের। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মিমো। লাগাতার যৌন মিলনের ফলে বছরচারেক পর অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন ওই তরুণী। সেকথা মিমোকে জানান তিনি। বিয়ে করতে অস্বীকার করেন মিমো। গর্ভপাতের জন্য চাপ দিতে থাকেন। তবে তাতে রাজি হননি তরুণী। তাই না জানিয়ে ওষুধ খাইয়ে মিমো ওই তরুণীর গর্ভপাত করান বলেও অভিযোগ। এমনকী নির্যাতিতার আরও অভিযোগ, মিঠুন জায়া যোগিতা বালিও  তাঁকে হুমকি দেন।

ইতিমধ্যে ২০১৮ সালে মহাক্ষয়  ওরফে মিমো বিয়ে করেন। সেই সময় তিনি ধর্ষণের মামলা রুজু করার চেষ্টা করেন তরুণী। তবে পুলিশ তাঁর অভিযোগ নিতে অস্বীকার করে। এরপর দিল্লিতে চলে যান নির্যাতিতা। দিল্লির রোহিণী আদালতে তিনি একটি মামলা রুজু করেন। এফআইআর দায়েরের আবেদন জানান তরুণী। প্রাথমিক প্রমাণাদির ভিত্তিতে আদালত এফআইআর দায়েরের নির্দেশ দেন। সেই অনুযায়ী ওশিওয়াড়া থানায় মিঠুনপুত্র মিমো এবং যোগিতা বালির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।সংবাদ প্রতিদিন