বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০ ইং, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বাংলা

সেরা ডুয়েল সেলফি ক্যামেরার ফোন ইনফিনিক্স জিরো ৮
ঢাকা কনভারসেশন ডেস্ক প্রকাশিত হয়েছে: ২০২০-১০-২৩ ১৯:২৬:০২ /
ফ্রান্সের উচিৎ মুসলিম দেশগুলোতে হস্তক্ষেপ বন্ধ করা: রুহানি

প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই মোবাইল ইন্ড্রিাস্ট্রিকে চমক দিয়ে আসছে চীনের শেনজেন-ভিত্তিক স্মার্টফোন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ইনফিনিক্স। এরই মধ্যে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য সাশ্রয়ী মূল্যসীমার মধ্যে বেশ কয়েকটি অত্যাধুনকি ফিচারের ট্রেন্ডি স্মার্টফোন বাজারে নিয়ে এসেছে ইনফিনিক্স।

এবার বিশ্বের প্রথম ৪৮ মেগাপিক্সেলের (এমপি) ডুয়েল সেলফি ক্যামেরা ও সনি আইএমএক্স ৬৮৬ লেন্সের সাথে ৬৪ মেগাপিক্সেল কোয়াড রিয়ার ক্যামেরার সর্বশেষ ফ্ল্যাগশিপ ‘ইনফিনিক্স জিরো ৮’ বাজারে নিয়ে এসেছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রিমিয়াম অনলাইন স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ইনফিনিক্সের নতুন এ ডিভাইসের অসাধারণ ফিচারগুলো জেনে নিন।

ক্যামেরা
ফোনটির সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হলো এর দুর্দান্ত ক্যামেরা। এতে কোয়াড (৬৪এমপি+৮এমপি+২এমপি+২এমপি) রিয়ার ক্যামেরা সিরিজ এবং সামনে ৪৮এমপি+৮এমপি ডুয়েল ক্যামেরাসহ মোট ৬টি ক্যামেরা আছে। ৩০এফপিএসের ৪কে ভিডিও রেকর্ডিংয়ের জন্য এতে সনি আইএমএক্স ৬৮৬ লেন্সের ৬৪ এমপি কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা, ৮ এমপি আল্ট্রা-ওয়াইড সেন্সর এবং কম আলোতে ফটোগ্রাফি এবং দারুন ছবি তুলতে ২ এমপি ক্যামেরা রয়েছে। স্মার্টফোনটির সামনের অংশে বিশ্বে প্রথমবারের মতো ৪৮ এমপি সেন্সর ও ৮ এমপি আল্ট্রা-ওয়াইড-এঙ্গেল লেন্সসহ ডুয়েল ফ্রন্ট ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে।

ডিসপ্লে
এ স্মার্টফোনে ১০৮০x২৪৬০পিক্সেল রেজুলেশন এবং ৩৯২ পিপিআই ঘনত্বের ৬.৮৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি স্ক্রিন আছে। জিরো ৮ এর ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট আপনাকে স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে স্ক্রিন ব্রাউজের সুবিধা দিবে। এর টাচ-সংবেদনশীল স্ক্রিন আপনাকে দ্রুত সময়েরে মধ্যে মাল্টি টাস্কিংয়ের সুযোগ দিবে। আপনি যদি বড় এইচডি মোবাইল-স্ক্রিন ডিসপ্লেতে ইউটিউব ভিডিও, চলচ্চিত্র বা ওয়েব সিরিজ দেখতে চান তবে ইনফিনিক্স জিরো ৮ ভালো পছন্দ হতে পারে।

ডিজাইন
ইনফিনিক্স জিরো ৮ ফোনর ওজন-ভারসাম্য অসাধারণ। ২০০ গ্রাম ওজনের এ গ্যাজেটটিকে হাতে নিয়ে যথেষ্ট মানানসইভাবেই চালানো যাবে। ফোনটির সামনের স্ক্রিনে ডুয়েল পাঞ্চহোল ক্যামেরা আছে। পেছনের অংশে ডাইমন্ড-আকৃতির কোয়াড ক্যামেরা আছে যা এর ব্যাক-প্যানেল ডিজাইনটিকে করেছে অনন্য। পেছনের ক্যামেরা নিচের অংশেই দেয়াহেয়েছে ‘ইনফিনিক্স’ এর লোগোটি। ফোনের ডান পাশের অংশে ভলিউম রকার ও হোম বাটনসহ ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার আছে। দুটি সিম কার্ড ও একটি মেমরি কার্ডের সন্নিবেশে বাম পাশে রয়েছে সিম কার্ড স্লট। উপরের প্রান্তটি খালি রাখা হলেও নিচের প্রান্তে একটি ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট, ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক, মাইক্রোফোন ও একটি স্পিকার গ্রিলের বিন্যাস আছে। ফোনটি ব্লাক ডাইমন্ড ও গ্রিন ডাইমন্ড রঙে পাওয়া যাচ্ছে।

পারফরমেন্স
সর্বোচ্চ ২.০৫ গিগাহার্জ গতিসহ এ৫ ও এ৫৫ কর্টেক্স কাঠামোতে ডিজাইন করা ইনফিনিক্স জিরো ৮ -এ অক্টা-কোর সিপিইউ আছে। স্মার্টফোনটিতে মিডিয়াটেক এমটি৬৭৮৫ হেলিও জি৯০ চিপসেট রয়েছে। এ প্রসেসর দিয়ে সমসাময়িক উচ্চ ফ্রেমের পাবজি, সিওডি, এসপাল্ট ৯ এর মতো মাল্টিপ্লেয়ার গেম খেলার সময় দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা পাওয়া যাবে। গেমিংয়ের আরও ভালো পারফরমেন্স পেতে আপনি রিফ্রেশ রেটটি ৯০হার্জ থেকে ৬০হার্জে এ ডাউনগ্রেড করতে পারবেন। এতে থাকা মালি-জি৭৬ এমসি৪ জিপিইউ আপনাকে গেমিং বা ভিডিও দেখার অনন্য ভিজ্যুয়াল পারফরমেন্স দিবে।

স্টোরেজ
ইনিফিনিক্স জিরো ৮ স্মার্টফোনটি ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারন্যাল স্টোরেজ সংস্করণে পাওয়া যাবে। এতে থাকা শক্তিশালী র‌্যাম বড় বড় অ্যাপ্লিকেশনগুলোর পাশাপাশি সহজেই ভারী গেমিং সফটওয়্যার চালাতে সহায়তা করবে। এতে থাকা ইন্টারন্যাল স্টোরেজ প্রফেশনাল এবং নিয়মিত অ্যাপ্লিকেশনগুলোর জন্য যথেষ্ট, তবে আপনি চাইলে একটি এক্সটার্নাল মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করে এর মেমরি আরও বাড়াতে পারবেন।

অপারেটিং সিস্টেম
অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক এক্সওএস ৭ চালিত নতুন এ ফোনতে অনেকগুলো প্রি-ইনস্টল অ্যাপ্লিকেশন ও সফটওয়্যার রয়েছে। প্রয়োজনে আপনি এসব অ্যাপ্লিকেশন আনইনস্টল করে গ্যাজেটের পারফরমেন্স আরও বাড়াতে পারবেন।

ব্যাটারি
৩৩ ডব্লিউ সুপার-ফাস্ট চার্জিংয়ের সাথে ৪৫০০ এমএএইচ ব্যাটারির ইনফিনিক্স জিরো ৮ ফোনটি দিয়ে টানা ৩৬ ঘণ্টা কথা বলা যাবে। সেইসাথে ফোনটিতে ২৬ দিনের স্ট্যান্ডবাই সুবিধা পাওয়া যাবে।

দাম
ইনফিনিক্স জিরো ৮ এর ৮জিবি ও১২৮ জিবি সংস্করণটির দামসীমার মধ্যে খুবই ভালো সুবিধা দিতেই ইনফিনিক্স জিরো ৮। হাই রিফ্রেশ রেট, ফুল এইচডি ডিসপ্লে, বড় স্ক্রিন, ভার্সেটাইল ক্যামেরা সিরিজ ও মেমরি কার্ড স্লটসহ একগুচ্ছ প্রিমিয়াম সিরিজের ইনফিনিক্স জিরো ৮ স্মার্টফোন প্রশংসার দাবিদার।

ইনফিনিক্স জিরো ৮ সম্পর্কে জানতে ভিজিট করুন- https://www.infinixmobility.com/smartphone/zero-8